পুজোর আগের গপপো – ৫

চার দাদার পর যখন ও জন্মাল, বাবা মা ওর নাম রেখেছিলেন সান্ত্বনা। বাবাকে অত ভাল মনে নেই ওর। চার দাদারা …

চার দাদার পর যখন ও জন্মাল, বাবা মা ওর নাম রেখেছিলেন সান্ত্বনা। বাবাকে অত ভাল মনে নেই ওর। চার দাদারা যখন একে একে বিয়ে করে আলাদা হয়ে গেল তখন সান্ত্বনা সবে উচ্চমাধ্যমিক পাশ করেছে।

মা শক্ত ভাবে বাবার করা বাড়িটা ধরে রেখেছে ছেলেদের আলাদা হতে দিয়ে। না হলে হয়ত এতদিনে ওদের পথে বসতে হত। উচ্চমাধ্যমিকের পর আর প্রথাগত পড়াশোনা না করে বারাসাতে বিউটিশিয়ান কোর্সে ভর্তি হয়ে গেছিল।

বারাসাতে কে এন সি রোডে পাশাপাশি কম্পিউটার আর ভোকেশনাল ট্রেনিং সেন্টার ছিল। মাধ্যমিকের পরে কম্পিউটার শিখতে গিয়ে দেখেছিল কতরকম জিনিস শেখানো হয়। তখনই বিউটিশিয়ান কোর্সে ভর্তি হওয়ার জন্য কথা বলেছিল। উচ্চমাধ্যমিকের পর এসে সোজা ভর্তি হয়ে যায়।

যে ম্যাম ওদের বিউটিশিয়ান কোর্সে ক্লাস নিতেন তিনি নিজে শেহনাজ হুসেইনের থেকে শিখেছেন। প্রখ্যাত বিউটিশিয়ানের থেকে শেখা সমস্ত রকম দক্ষতা ওদের সঙ্গে ভাগ করে নিতেন। সান্ত্বনার আগ্রহ দেখে ওর দিকে একটু বেশি নজর দিতেন ম্যাম। বাকি যেসব মেয়েরা শিখত তাদের বেশিরভাগই শখে শিখতে এসেছে। কোনো কঠিন কাজ বা রূপচর্চার যেসব অংশ মনোযোগ দিয়ে করতে হয় বেশিরভাগই শুধু এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করত।

সান্ত্বনা প্রতিটা কাজ মনোযোগ দিয়ে শিখেছিল ফলে কোর্স শেষের পর ম্যাম একমাত্র তাকেই নিজের পার্লারে নিযুক্ত করেছিলেন। হেয়ার কাটিং, আইব্রাও, থেকে শুরু করে ম্যানিকিওর-পেডিকিওর, ট্যান রিমুভাল, ম্যাসাজ সহ আরও বিভিন্ন রকম পদ্ধতি। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত বিস্তৃত সময়ে বিভিন্ন কাস্টমারদের সার্ভিস দেওয়া।

অল্পদিনের মধ্যেই সান্ত্বনার বেশ নাম হয়েছে। কাস্টমাররা এসে ওরই খোঁজ করে। ম্যাম এখন টিভিতে শো করেন তাতেও সান্ত্বনার ডাক পড়ে। তাতে আলাদা করে টাকা। বিউটি পার্লারের পাশাপাশি নিজের এলাকায় কিছু কিছু ছোট ছোট কাজও করে। তাতেও বাড়তি রোজগার।

পুজো প্রায় এসেই গেল। পুজোতে সবাই নিজেকে নতুন লুকস দিতে চায়। কলকাতার পাশাপাশি তাদের শহরতলীতেও মেয়েরা পিছিয়ে নেই। ম্যাম নতুন দু-তিন রকম পুজো স্পেশাল ট্রিটমেন্ট প্যাকেজ চালু করেছেন। ফুট অ্যান্ড হেয়ার স্পার পাশাপাশি ডিটক্সিং আর পিম্পল আর অ্যাকনের জন্য স্পেশাল কেয়ার।

ভিড়ে উপচে পড়া পার্লারেও মাঝে মাঝে নিজের কথা ভাবতে ভালো লাগে সান্ত্বনার। পুজোয় সপ্তমী পর্যন্ত খোলা। তারপর কদিন বন্ধ। কালীপুজো ভাইফোঁটা মিটতে মিটতে বিয়ের সিজন এসে যায়। তখন আবার অন্যরকম রূপচর্চা।

এতকিছুর পরে নিজের দিকে সময় দেওয়া একেবারেই হয়ে ওঠে না। আসন্ন পুজোর কথা ভাবতে ভাবতে সামনের বসা মেয়েটার ভুরুর দিকে তাকিয়ে আঙুলে সুতো জড়িয়ে নেয়। আজ পঞ্চমী, এখনও অনেক কাস্টমার বসে আছে সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য…

সান্ত্বনার পুজোর আগের গপপো এখানেই শেষ। সান্ত্বনার কাজকর্ম সম্পর্কে আমাকে জানতে সাহায্য করেছে আমার বউ কাবেরী, রূপচর্চা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ কেয়া শেঠ, শর্মিলা সিং ফ্লোরা আর সৌমী ভট্টাচার্য। পুজোর আগের গপপো সিরিজের এখানেই শেষ।

Keep reading

More >